‘সোলেইমানিকে হত্যা করেছে ট্রাম্পের নেতৃত্বাধীন একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠি ’

11

মার্কিন হামলায় জেনারেল কাসেম সোলাইমানির হত্যাকাণ্ড ছিল ‘সন্ত্রাসী হামলা’ ও ‘রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসবাদের’ উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ইরান বলেছে । ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে আজ সোমবার তেহরানে সাংবাদিকদের সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে এ মন্তব্য করেন।

জেনারেল কাসেম সোলাইমানির শাহাদাতবার্ষিকী ঘনিয়ে এসেছে- জানিয়ে খাতিবজাদে বলেন, সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নেতৃত্বাধীন একটি সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী গোষ্ঠী জেনারেল সোলাইমানিকে হত্যার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়ন করে।
ইরাক সরকারের রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ভোররাতে বাগদাদ বিমানবন্দরে অবতরণ করার কিছুক্ষণ পর সন্ত্রাসী মার্কিন সেনাদের ড্রোন হামলায় শহীদ হন জেনারেল সোলাইমানি। তার সঙ্গে শহীদ হন ইরাকি জনপ্রিয় হাশদ আশ শাবি বাহিনীর কমান্ডার আবু মাহদি আল-মুহান্দিস। এরপর তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বুক ফুলিয়ে ঘোষণা করেন, তিনি নিজে ইরানের এই জনপ্রিয় জেনারেলকে হত্যা করার নির্দেশ দিয়েছেন।

ইরানের এই মুখপাত্র বলেন, এই পাশবিক হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে মার্কিন সরকার আন্তর্জাতিকভাবে দায়বদ্ধ এবং এই হত্যার পরিকল্পনা ও বাস্তবায়নকারীদের বিচারিক আদালতে তোলার ব্যাপারে ইরান চেষ্টার কোনো ত্রুটি করবে না।

সাংবাদিকদের ভিন্ন এক প্রশ্নের উত্তরে খাতিবজাদে জানান, অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় আজ থেকে আবার পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবনের আলোচনা শুরু হচ্ছে। তিনি বলেন, কিছু ইউরোপীয় দেশ এই আলোচনায় অগঠনমূলক ভূমিকা রাখছে, তবে এই সংলাপ থেকে ফল বের করে আনতে হলে তাদেরকে গঠনমূলক ভূমিকা রাখতে হবে। সূত্র: পার্সটুডে