Home / খেলা / ‘ স্থগিত করা হবে সিরিজ বিসিবি শর্ত না মানলে’

‘ স্থগিত করা হবে সিরিজ বিসিবি শর্ত না মানলে’

শর্ত মানা কিংবা না মানা নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও ক্রিকেট শ্রীলঙ্কার (এসএলসি) মধ্যে দরকষাকষি চরম পর্যায়ে।বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে জলঘোলা কম হয়নি। ক’দিন আগেই বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলে কোয়ারেন্টাইনের সময় কমাতে না পারলে শ্রীলঙ্কা সফর সম্ভব নয়। এসএলসির সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় ২৭ সেপ্টেম্বর বিমানে চড়ছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট দল, আভাস পাওয়া গিয়েছিল আগেই। কিন্তু এবার গোটা সফরটাই বাতিল হওয়ার অপেক্ষায়! এসএলসি থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে শ্রীলঙ্কা কোভিড-১৯ টাস্কফোর্সের দেওয়া শর্ত মেনে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে টাইগার ক্রিকেটারদের, অন্যথায় বাতিল করা হবে সিরিজটি।

গতকাল (২৪ সেপ্টেম্বর) লঙ্কান গণমাধ্যমে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের (এসএলসি) প্রধান নির্বাহী অ্যাশলে ডি সিলভা ও সেক্রেটারি মোহন ডি সিলভা স্পষ্ট জানিয়েছেন দেশটির কোভিড টাস্ক ফোর্সের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। বিসিবি শর্ত মানতে রাজি না হলে প্রয়োজনে আবারও স্থগিত হবে সিরিজ, পরবর্তী বছর একই সময়ে আয়োজনের পরিকল্পনাও আছে তাদের।

করোনাকালে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলো যখন পজিটিভ রোগী নিয়ে ভোগান্তিতে ছিল তখন বেশ শক্ত হাতে এই মহামারী নিয়ন্ত্রণ করে শ্রীলঙ্কা। ফলে একটি সিরিজ আয়োজনের মাধ্যমে কোন প্রকার ঝুঁকি নিতে চায়না দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বাংলাদেশকে সফর করতে হলে মানতে হবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনের বাধ্যবাধকতা।

শুধু বাংলাদেশ নয় যেকোন বিদেশি শ্রীলঙ্কায় প্রবেশ মানেই ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইন। যে কারণে ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আরেক দফা পেছানোর শঙ্কা লঙ্কান প্রিমিয়ার লিগও (এলপিএল)।

দেশটির কোভিড টাস্ট ফোর্সের নির্দেশনা মানতে রাজি না হলে সিরিজ স্থগিতের পথে হাঁটবে এসএলসি। এ প্রসঙ্গে এসএলসি প্রধান নির্বাহী অ্যাশলে ডি সিলবা বলেন, ‘কোভিড-১৯ টাস্কফোর্স থেকে আমরা যে বার্তাই পাই না কেন, সেটা আমরা বিসিবিকে পাঠাবো। টাস্ক ফোর্সের নির্দেশনা যদি তারা মানতে প্রস্তুত না থাকে, তাহলে সিরিজটি আমাদের স্থগিত করতে হবে এবং আগামী বছর বা পরোর বছর সিরিজটি আয়োজনের চিন্তা করবো।’

প্রায় একই সুরে কথা বললেন এসএলসি সেক্রেটারি মোহন ডি সিলভা। দেশষটির করোনা পরিস্থিতি সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে এই মুহূর্তে, ‘বাংলাদেশ তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেরতে আসার কথা। আমরা তাদের সাথে আলোচনা করছি। আমাদের তাদের চাহিদাগুলো পাঠিয়েছে। কিন্তু আপনারা জানেন, দেশ হিসেবে আমরা এই মহামারী নিয়ন্ত্রণে রাখতে খুবই সফল হয়েছি। সেজন্য কঠোর স্বাস্থ্য নির্দেশিকা মানতে হচ্ছে আমাদের।’

তবে মোহন ডি সিলভার আশা সব বাধা বিপত্তি পেছনে ফেলে বাংলাদেশ দ্রুতই শ্রীলঙ্কা সফর করবে, ‘আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই কর্তৃপক্ষকে যারা কিনা এই মহামারির মধ্যেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে আমাদের সঙ্গে একমত হয়েছেন। আমরা তাদের (বিসিবি) সঙ্গে আলোচনা অব্যাহত রেখেছি এবং আমরা নিশ্বিচত তারা এসব বিষয়গুলো নিয়ে বোঝাপড়া করছে। আশা করছি আমরা এটার সমাধান করতে পারব। আশা খুব দেরি না করেই বাংলাদেশ দল শ্রীলঙ্কা সফরে আসবে।’

প্র্রসঙ্গত, কদিন আগেই বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন এসএলসি শর্ত মানতে না পারলে কোনোভাবেই শ্রীলঙ্কা সফর সম্ভব নয়। তারপরই এসএলসি ‍সুর নরম করে বিসিবির শর্ত নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করার কথা জানায়। কিন্তু এখন বিসিবির দাবি মানার বদলে উল্টো কথা শোনাচ্ছে ক্রিকেট শ্রীলঙ্কা। এখন দেখার বিষয় বিসিবি এসএলসির কাছে মাথা নোয়ায় কি না!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: