স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি বিএনপি সহিংস হলে ব্যবস্থা

6

 স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল অসুস্থ খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠাতে চাপপ্রয়োগের কৌশল হিসেবে বিএনপির কর্মসূচিতে কোনো ধরনের সহিংস ঘটনা ঘটলে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। আজ রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিএনপিকে ‘দোয়া মাহফিল ও মানববন্ধনের মতো গণতান্ত্রিক কর্মসূচি’ পালনের পরামর্শও দেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসনকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমোদন আদায়ে দলটি অবরোধের হুমকি দিচ্ছে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া জানতে চান সাংবাদিকরা। উত্তরে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘বিএনপি দোয়ার মাহফিল করতে পারেন, মানববন্ধন করতে পারেন; তারা পলিটিক্যাল পার্টি, তারা তাদের কর্মসূচি দিতে পারেন। কিন্তু মানুষের জানমাল রক্ষার জন্য, সম্পদ রক্ষার জন্য আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সব সময় প্রস্তুত থাকবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘তারা যদি ওই জায়গাটাতে একটা বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করেন, কিংবা জানমাল বিনষ্ট করার প্রচেষ্টা নেন, তাহলে কিন্তু আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।’খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশ না পাঠালে সরকারকে ‘গদিচ্যুত’ করার হুমকি দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

প্রসঙ্গত, ৭৬ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বহু বছর ধরে আরথ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, কিডনি, ফুসফুস, চোখের সমস্যাসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন। গত ১৩ নভেম্বর থেকে তিনি বসুন্ধরায় এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি। তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে সরকারের কাছে আবেদন করেছে তার পরিবার। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, যেহেতু দণ্ড স্থগিত করে শর্তসাপেক্ষে খালেদা জিয়াকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছে, সেহেতু তাকে এখন বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার সুযোগ নেই। তবে তিনি যদি কারাগারে ফিরে গিয়ে আবেদন করেন, সরকার তখন তা বিবেচনা করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও বলেছেন, সরকারপ্রধান হিসেবে নির্বাহী ক্ষামতায় তার যা করার ছিল, তিনি তা করেছেন। এখন বাকিটা ‘আইনের বিষয়’।

বিএনপি সহিংস হলে ব্যবস্থা, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি
অসুস্থ খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠাতে চাপপ্রয়োগের কৌশল হিসেবে বিএনপির কর্মসূচিতে কোনো ধরনের সহিংস ঘটনা ঘটলে সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। আজ রোববার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বিএনপিকে ‘দোয়া মাহফিল ও মানববন্ধনের মতো গণতান্ত্রিক কর্মসূচি’ পালনের পরামর্শও দেন তিনি।

বিএনপি চেয়ারপারসনকে বিদেশে চিকিৎসার অনুমোদন আদায়ে দলটি অবরোধের হুমকি দিচ্ছে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া জানতে চান সাংবাদিকরা। উত্তরে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘বিএনপি দোয়ার মাহফিল করতে পারেন, মানববন্ধন করতে পারেন; তারা পলিটিক্যাল পার্টি, তারা তাদের কর্মসূচি দিতে পারেন। কিন্তু মানুষের জানমাল রক্ষার জন্য, সম্পদ রক্ষার জন্য আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সব সময় প্রস্তুত থাকবে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘তারা যদি ওই জায়গাটাতে একটা বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সৃষ্টির চেষ্টা করেন, কিংবা জানমাল বিনষ্ট করার প্রচেষ্টা নেন, তাহলে কিন্তু আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।’খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশ না পাঠালে সরকারকে ‘গদিচ্যুত’ করার হুমকি দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

প্রসঙ্গত, ৭৬ বছর বয়সী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া বহু বছর ধরে আরথ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, কিডনি, ফুসফুস, চোখের সমস্যাসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন। গত ১৩ নভেম্বর থেকে তিনি বসুন্ধরায় এভারকেয়ার হাসপাতালের সিসিইউতে ভর্তি। তাকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে নিতে সরকারের কাছে আবেদন করেছে তার পরিবার। কিন্তু সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, যেহেতু দণ্ড স্থগিত করে শর্তসাপেক্ষে খালেদা জিয়াকে সাময়িক মুক্তি দেওয়া হয়েছে, সেহেতু তাকে এখন বিদেশে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার সুযোগ নেই। তবে তিনি যদি কারাগারে ফিরে গিয়ে আবেদন করেন, সরকার তখন তা বিবেচনা করতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও বলেছেন, সরকারপ্রধান হিসেবে নির্বাহী ক্ষামতায় তার যা করার ছিল, তিনি তা করেছেন। এখন বাকিটা ‘আইনের বিষয়’।