১১তম সাধারন সভা অনুষ্ঠিত একগুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়ে চসিকের

2

cc

চট্টগ্রাম : রবিবার (২৬ জুন) বিকেলে কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।আধুনিক ও পরিকল্পিত নগর গড়তে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৫ম নির্বাচিত পরিষদের ১১তম সাধারণ সভায় বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহনের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় নির্বাচিত পরিষদের সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, অফিসিয়াল কাউন্সিলর, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিব সহ সিটি কর্পোরেশনের বিভাগীয় প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

সভার সভাপতি আ জ ম নাছির উদ্দীন সভাপতির বক্তব্যে বলেন, ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছর থেকে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে টেকসই উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালিত হবে। প্রতি বছর মার্চ মাসের মধ্যে উন্নয়ন কাজ সমাপ্ত করা হবে। সে লক্ষে কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

মেয়র বলেন, চলতি বর্ষা মৌসুমে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলরদের মাধ্যমে পরিকল্পিত বৃক্ষ রোপন অভিযান পরিচালিত হবে এবং ১ আগষ্ট থেকে ৩১ ডিসেম্বর এর মধ্যে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে ডোর টু ডোর বর্জ্য সংগ্রহ কার্যক্রম পরিচালিত হবে।তাঁর মেয়াদের মধ্যে পরিকল্পিত নগরায়ন এবং নগরীর অলিগলি শতভাগ আলোকিত করা হবে।

এছাড়াও সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অভ্যন্তরীন অডিট পরিচালনা, কায়সার নিলুফার কলেজে ¯œাতক কোর্স চালু, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের জেনারেল হাসপাতালে ১০ শয্যা বিশিষ্ট বার্ণ ইউনিট চালু,বাকলিয়া সিটি কর্পোরেশন স্টেডিয়ামকে আধুনিকায়ন করণ, মেয়র গোল্ডকাপ ২০১৬ আয়োজন, নগরীর ব্যস্ততম এলাকায় নতুন নতুন ফুটওভার ব্রীজ নির্মাণ, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় বিদ্যমান খালী জায়গাগুলোকে পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন করা,৪নং চান্দগাঁও ওয়ার্ড কার্যালয়ের স্থানে ২৫ তলা বহুতল ভবন নির্মাণ,ওয়ার্ডে জন্মনিবন্ধন কার্যক্রম তদারকিকরণ, দূর্যোগ মোকাবেলায় সচেতনতা বৃদ্ধি করা, সেবক কলোনী সমূহের বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের সহজ উপায় উদ্ভাবন করা, সড়ক বাতির সাথে থাকা অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা, নগরীর সকল মিড আইল্যান্ডে বৃক্ষ রোপন ও প্রাকৃতিক পরিবেশ সংরক্ষন করা।

প্রতিটি ওয়ার্ডে বৃক্ষ রোপন অভিযান পরিচালনা করা হবে জানিয়ে মেয়র আরো বলেন,ঈদের পূর্ব পর্যন্ত বাজার পর্যবেক্ষন ও মনিটরিং অব্যাহত রাখা,কর্পোরেশন পরিচালিত ২১টি বাজারে ডিজিটাল পরিমাপক যন্ত্র স্থাপন করা, তথ্য, প্রযুক্তিগত যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজলভ্য করতে ওয়ার্ডে ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন,কর্পোরেশন পরিচালিত স্কুল, কলেজ ও হাসপাতাল, বাণিজ্যিক স্থাপনা,প্রতিটি ওয়ার্ড অফিসকে বহুবিদ ব্যবহার উপযোগী করে সাজানো, অবকাঠামো ইনভেন্টরী করা, এ ছাড়াও বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ সানাওয়ার আলী, চট্টগ্রাম বিমান বন্দর ড্রাইডক থেকে বিমান বন্দর ঘাটি পর্যন্ত স্কোয়াড্রন লিডার মো. শাফায়েত সরওয়ার এর নামে রাস্তার নামকরণ করা।
সভায় আসন্ন ঈদুল ফিতর এর প্রথম ও প্রধান জামাত সকাল ৮:৩০ টায় এবং দ্বিতীয় জামাত সকাল ৯ : ৩০ টায় জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদ মাঠে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনায় আয়োজনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।