Home / খবর / বজ্রপাতে ১৩ জনের মৃত্যু আজও

বজ্রপাতে ১৩ জনের মৃত্যু আজও

thunderd_5_112891ঢাকা ১৩ মে:  ঢাকাসহ দেশের আট জেলায় বজ্রপাতে ১৩জন নিহত হয়েছেন আজও। শুক্রবার বিভিন্ন সময় এসব বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। গতকাল দেশের বিভিন্ন স্থানে বজ্রপাতে অন্তত ৪০ জনের মতো নিহত হন। একদিনে বজ্রপাতে এত মৃত্যুর ঘটনা সাম্প্রতিককালের ইতিহাসে নেই।

শুক্রবার বজ্রপাতে ঢাকার সাভার ও ধামরাইয়ে, নওগাঁয় ও জয়পুরহাটে দুইজন করে মারা গেছেন। টাঙ্গাইলে মারা গেছেন তিনজন। এছাড়া,চট্টগ্রাম, চাঁদপুর, গাইবান্ধা ও হবিগঞ্জে একজন করে মারা যান।

ঢাকা: শুক্রবার সকালে ও দুপুরে ধামরাই ও সাভারে পৃথকভাবে স্কুলছাত্রসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। প্রতিনিধি জানান, ধামরাই উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাস্তা নয়াচর এলাকায় বজ্রপাতে মনির হোসেন (১৪) নামের এক কিশোর নিহত হয়েছে। এছাড়া, দুপুরে সাভারের ছায়াবিথীর বালুরমাঠে বন্ধুদের সঙ্গে ফুটবল খেলার সময় মন্টু মিয়া (১৪) নামের এক স্কুলছাত্র বজ্রপাতে মারা যায়।

দুপুরে প্রচণ্ড ঝড়-বৃষ্টিতে ছায়াবিথীর বালুরমাঠে ফুটবল খেলার সময় বজ্রপাতে গুরুতর আহত হয় মন্টু মিয়াসহ আরও দুইজন। পরে স্থানীয়রা আহতদের দ্রুত উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মন্টু মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

টাঙ্গাইল: বৃহস্পতিবার বজ্রপাতে তিন জনের মৃত্যুর পর আজ শুক্রবার আরও তিনজনের দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার বেলা ১১ টার দিকে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। বজ্রপাতে নিহত দুইজনই শিক্ষার্থী।

প্রতিনিধি জানান, উপজেলার খড়ক গ্রামের আবদুস ছালামের ছেলে আনিসুর রহমান (১৪) জমি থেকে ধানের বোঝা আনার সময় বজ্রপাতের শিকার হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। একই সময় পৌরসভার পলিশা এলাকার মোকলেছুর রহমানের মেয়ে লিমা (১৩) বাড়ির উঠান থেকে ধান নেয়ার সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। এছাড়া বিকালে দেলদুয়ার উপজেলায় মাঠে কৃষিকাজ করার সময় রাজ আলী (৩৫) নামে একজন মারা গেছেন। নিহত রাজের বাড়ি সিরাজগঞ্জে। তিনি দেলদুয়ারের উপমল্লী গ্রামে শাহ নূরের বাড়িতে কাজ করতেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বজ্রপাতে ঘটনাস্থালেই তার মৃত্যু হয়।

নওগাঁ: বেলা পৌনে ১১টার দিকে নওগাঁর পোরশা উপজেলার নিতপুর দীঘিপাড়া ও মহাদেপুর উপজেলার ধঞ্জইল গ্রামে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

মৃতরা হলেন- পোরশা উপজেলার নীতপুর দীঘিপাড়া গ্রামের গোলজার হোসেনের ছেলে ইব্রাহিম ও মহাদেপুর উপজেলার ধঞ্জইল গ্রামের কৃষক শচীন মুহুরী।

আমাদের নওগাঁ প্রতিনিধি জানান,, সকালে ঝড়-বৃষ্টির সময় ইব্রাহিম বাড়ির পাশে একটি বাগানে আম কুড়াতে যায়। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এছাড়া, ধঞ্জইল গ্রামের মাঠে সকালে ফসল দেখতে গিয়ে বজ্রপাতে কৃষক শচীন মুহুরীর মৃত্যু হয়।

জয়পুরহাট: সকাল সোয়া ১০টা এবং ১১টার দিকে জেলা সদর ও ক্ষেতলাল উপজেলায় বজ্রপাতে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

মৃতরা হলেন- কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার ইসমাইল হোসেনের ছেলে রফিকুল ইসলাম ও ক্ষেতলাল উপজেলার ঘুগইল গ্রামের আছাদুজ্জামানের ছেলে মানিক হোসেন।

প্রতিনিধি জানান, সকালে সদর উপজেলার তুলশীগঙ্গা নদী তীরবর্তী সতিঘাটা এলাকায় ধান কাটার সময় বজ্রপাতে রফিকুল নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়। আহত হয় আফজাল হোসেন নামে অন্য এক শ্রমিক।

এছাড়া বেলা ১১টার দিকে ক্ষেতলাল উপজেলার ঘুগইল গ্রামের মাঠে ধান কাটার সময় বজ্রপাতে মানিক হোসেনের মৃত্যু হয়।

জয়পুরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরিদ হোসেন বজ্রপাতে একজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চট্টগ্রাম: সকাল সাড়ে ১১টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর হালিশহর থানার ফইল্ল্যাতলী এলাকায় বজ্রপাতে আমজাদ হোসেন নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

নিহত আমজাদ সাবেক গণশিক্ষা মন্ত্রী ও হালিশহর-ডবলমুরিং আসনের সরকার দলীয় সাংসদ ডা. আফসারুল আমীনের চাচাতো ভাই। সকালে হালিশহর ফইল্ল্যাতলী এলাকায় বৃষ্টিতে সড়কে দাঁড়িয়ে থাকার সময় বজ্রপাতে তার মৃত্যু হয়।

চাঁদপুর: চাঁদপুরের মেঘনা মোহনায় মালবাহী ট্রলারে বজ্রপাতে মো: নবীর হোসেন (২৫) নামে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ওসমান গনি (৫০) ও মো: রাকিব (২৪) নামের দুইজন।

শুক্রবার (১৩ মে) দুপুর ২টায় মেঘনা নদীর মোহনা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত নবীর হোসেন লক্ষীপুর জেলার কমল নগর থানার চরফলকন গ্রামের মোহাম্মদ হোসেনের ছেলে। আহত ওসমান চাঁদপুর সদর উপজেলার তারাবুনিয়া এলাকার মনু মিয়ার ছেলে এবং রাকিব লক্ষ্মীপুর জেলার চর আলেকজেন্ডার বশির মাঝির ছেলে।

ওই ট্রলারে থাকা অপর শ্রমিক টিটুর বরাতে আমাদের প্রতিনিধি জানান জানান, তারা মালবাহী ট্রলার নিয়ে মেঘনার পশ্চিম পাড়ে যাচ্ছিল। হঠাৎ বজ্রপাতে ৩ শ্রমিক অজ্ঞান হয়ে পড়ে। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে দুপুর আড়াইটায় নবীর হোসেনকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক বেলাল হোসেন খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গাইবান্ধা: প্রতিনিধি জানান, সকাল সাড়ে ১১টার দিকে জেলার সদর উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের খোর্দ্দ মালীবাড়ি পূর্বপাড়া গ্রামে জমিতে কাজ করার সময় বজ্রপাতে মারা যান সিরাজুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি।

এছাড়া হবিগঞ্জে বজ্রপাতের ঘটনায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

(ঢাকাটাইমস//এলএ/ইস/এমআর) – See more at: http://www.dhakatimes24.com/2016/05/13/112891#sthash.hAIkkOiV.dpuf

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: