৪৯ লাখ মানুষের কোভিড শনাক্ত বৃটেনে এক সপ্তাহে রেকর্ড

20

কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন বৃটেনে এক সপ্তাহে রেকর্ড সংখ্যক মানুষ । দেশটির অফিস ফর ন্যাশনাল স্ট্যাটিসটিকস (ওএনএস) জানাচ্ছে, গত ২৬শে মার্চ শেষ হওয়া সপ্তাহে কোভিড আক্রান্ত হয়েছে মোট ৪৯ লাখ মানুষ। এর আগের সপ্তাহে এ সংখ্যা ছিল ৪৩ লাখ। এই সময়ে ইংল্যান্ডে ৪৩ লাখ বা প্রতি ১৩ জনে একজন মানুষ কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। আগের সপ্তাহে যা ছিল প্রতি ১৬ জনে একজন। এ খবর দিয়েছে স্কাই নিউজ।
খবরে জানানো হয়, ওয়েলসে গত সপ্তাহে তার আগের সপ্তাহের থেকে শনাক্ত সংখ্যা বেড়ে ১ লাখ ৯২ হাজার থেকে ২ লাখ ১২ হাজার হয়েছে। ইংল্যান্ড ও ওয়েলস উভয়ই রেকর্ড সংক্রমণ প্রত্যক্ষ করছে। ইংল্যান্ডের সবগুলো অঞ্চলেই কোভিড-১৯ পরীক্ষার পজিটিভ ফলের হার বেড়েছে।
তবে সবথেকে বেশি সংক্রমিত হয়েছে সাউথ-ওয়েস্ট ইংল্যান্ড। সেখানে ২৬শে মার্চ শেষ হওয়া সপ্তাহে প্রতি ১১ জনে একজন কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। এরপরেই আছে সাউথ-ইস্ট ইংল্যান্ড (১২ জনে একজন) এবং লন্ডন (১৩ জনে একজন)। সবথেকে বেশি আক্রান্ত হচ্ছে শিশুরা। ২ থেকে ৬ বছর বয়স্ক শিশুদের ১১ জনে একজনের কোভিড শনাক্ত হয়েছে এই সময়ে। এছাড়া ৩৫ থেকে ৪৯, ৫০ থেকে ৬৯ এবং ৭০ এর বেশি বয়স্কদের মধ্যে রেকর্ড সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে এই সপ্তাহে।
স্কটল্যান্ড ও নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডের পরিস্থিতিকে ‘অনিশ্চিত’ বলে জানিয়েছে ওএনএস। ২৬শে মার্চ শেষ হওয়া সপ্তাহে সেখানে ৪ লাখ ৫১ হাজার বা প্রতি ১২ জনে একজন কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন। তবে এই সংখ্যা তার আগের সপ্তাহের তুলনায় কম। ১৯শে মার্চ শেষ হওয়া সপ্তায় স্কটল্যান্ডে ৪ লাখ ৭৩ হাজার জন কোভিড আক্রান্ত হয়েছিল। অপরদিকে নর্দার্ন আয়ারল্যান্ডে গত সপ্তাহে ১ লাখ ২৩ হাজার জনের কোভিড শনাক্ত হয়েছে। অর্থাৎ প্রতি ১৫ জনে একজনের কোভিড শনাক্ত হয়েছে। সেখানেও আগের সপ্তাহের তুলনায় সংক্রমণ বেড়েছে।
সিনিয়র পরিসংখ্যানবিদ কারা স্টিল বলেন, বৃটেনজুড়ে এই কোভিড সংক্রমণ বৃদ্ধির পেছনে রয়েছে ওমিক্রনের বিএ.২ ভ্যারিয়েন্ট। ইংল্যান্ডের বেশিরভাগ নাগরিকের জন্য বিনামূল্যে কোভিড পরীক্ষার সুযোগ বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তার আগেই সর্বশেষ এই জরিপের ফল জানা গেলো।